হেফাজতে ইসলামীর বীর আন্দোলনকারীদের জন্য একটি উত্তম প্রস্তাব

হেফাজতে ইসলামীর বীর আন্দোলনকারীদের জন্য একটি উত্তম প্রস্তাব – আপনারা বাংলাদেশের আইন পরিবর্তনের আন্দোলন বাদ দিয়া বরং সৌদিআরব আর পাকিস্হান যাওয়ার আন্দোলনে নামেন। সাধারন জনগন আপনাদের সাপোর্টে থাকবে। ওই দাবী নিয়া লংমার্চ করেন, আমাদেরও সাথে পাবেন। হরতাল দেন, আমাদের রাস্তায়

প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে একদিন

প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন। জোটের প্রধান নেতারা প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ডিনারে উপস্হিত হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখোমুখি আছেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মাদ এরশাদ এবং সরাষ্ট্রমন্ত্রী মতিউর রহমান নিজামী, ডানদিকে বসেছেন ধর্মমন্ত্রী আল্লামা আহমদ শফি, বানিজ্যমন্ত্রী কাদের সিদ্দিকী, শিক্ষামন্ত্রী দেলোয়ার হোসেন সাঈদী, চরমোনাই পীর রেজাউল করিম,

ব্লগারদের গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ ও অবিলম্বে মুক্তি দাবী করছি

১ল এপ্রিল রাতে তিনজন ব্লগারকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এরা হলেন মশিউর রহমান বিপ্লব, রাসেল পারভেজ ও সুব্রত শুভ। তাদেরকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। মুক্তমনা এই ব্লগারদের গ্রেফতারের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং তাদের অবিলম্বে মুক্তি দাবী করছি। তাদের বিরুদ্ধে

মাতৃভূমি

লিখাটা লিখছিলাম ২০১০ সালের ১৪ ফেব্রয়ারিতে। কিন্তু কোন জায়গায় প্রকাশ করার মত সাহস পাই নাই। হঠাৎ আজকে মনে হল লেখাটা পকাশ করি খারাপ ভাল তো লেখাতে থাকবেই। ‘ভালবাসা‌!’  হ্যা ভালবাসা, আর সবচেয়ে তীব্র ভালবাসাটি হওয়া উচিৎ মাতৃভূমির জন্য। যে মাতৃভূমি

এ পথে যাওয়া যায় না, ঐখানে পূজা হচ্ছে

আজ সকালে ৮ টার সময় ভার্সিটিতে যাওয়ার জন্য বাসে উঠি, বরাবরের মত আজও রাস্তায় প্রচুর পরিমানে জ্যাম। সবার মাঝে উৎকন্ঠা কখন সবাই তার গন্তব্য স্থানে পেীছাবে। তাদের মত আমার মাঝে ও উৎকন্ঠা ছিল আমি কখন ক্লাসে পৌছাবো। বাস চলতে চলতে

ওবামা হচ্ছেন সবচেয়ে বড় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী: নোয়াম চমস্কি

সারা বিশ্বে যে গুপ্তহত্যা অভিযান চলছে তার নেতৃত্ব দিচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আমেরিকার খ্যাতনামা শিক্ষাবিদ ও দার্শনিক নোয়াম চমস্কি একথা বলেছেন। ভয়েস অব রাশিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে চমস্কি আরও বলেন, ওবামা হচ্ছেন সবচেয়ে বড় মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী। প্রেসিডেন্ট ওবামার নেতৃত্বেই

ছাত্র শিবিরের “বুড়ো গোলাপ” ।

তখনও অনুষ্ঠান শেষ হয়নি । প্রগতিশীল ছাত্র জোট আয়োজিত “Our campus Our Right” বিষয়ক একটি সেমিনারের শেষে প্রশ্ন উত্তর পর্ব চলছে । অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করছিলেন রংপুর জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি রাশে-দুল ইসলাম (বাবু)। আমার উপর দায়িত্ব ছিল অনুষ্ঠানের বিষয় ভিত্তিক

পত্রিকায় প্রকাশের জন্য সাম্প্রদায়িক সংঘাত নিয়ে মন্তব্য চাই…

বিশ্বব্যাপী কোরআন অবমাননা নিয়ে উত্তাল অবস্থার রেশ কাটতে না কাটতেই বাংলাদেশেও কোরআন অবমাননার ঘটনা ঘটেছে। তারই রেশ ধরে কিছুদিন আগে রামু আর উখিয়ায় ঘটে গেল দেশের অন্যতম নারকীয় সাম্প্রদায়িক হামলা। বিচ্ছিন্ন ভাবে চলছে কোরআন অবমাননা, মূর্তি ও প্রতিমা ভাংচুর, বিভিন্ন

যৌন সন্ত্রাসের কবলে যুব সমাজ

* কেস স্টাডি-১ ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০৪ সালের ২২ আগষ্ট। রাজধানী ঢাকার অদুরে সাভারের জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ( আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আজ কি মানুষের পরিবর্তে নরপশু তৈরি হচ্ছে!) । গার্মেন্টস কর্মী রাহেলা আক্তার লিমা নামের ১৯ বছরের এক তরুণীকে একদল নরপশু

পরিবর্তনের পথ-মুক্তির পথ

প্রিয় দেশবাসী,   দীর্ঘ চল্লিশ বছর অতিক্রম হয়ে গেল কিন্তু লক্ষ লক্ষ শহীদের স্বপ্ন এখনো সফল করা সম্ভব হয়নি |  আমাদের প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির বেবধান দিনের পর দিন বাড়ছেই |  রাজনীতিকদের আন্তরিকতার অভাবে এমনটি হয়েছে যে -তা নয়  | বরং আমাদের