উপসংহার

আজ ফাগুনের আগুন বনে-
জনহীন মনের ময়দানে
তোমার স্ববিরোধীতার কথা কই!
তুমি এখন ক্ষমতাসীন, আমি ভিন্নমতের সই!
আজ ফাগুনের রাঙা দিনে-
তুমি মনের ময়দানের মহাসমাবেশে এসে
আমায় ঘোষণা দিলে অবাঞ্ছিত, তুড়ি দিয়ে হেসে।
তোমার আমার পথ করলে পৃথক, ঘোষণা দিয়ে
আমি হলাম বহিস্কৃত, তোমার থেকে প্রিয়ে।
তোমার সাথে হয়নি বলে আমার সহমত
কৌশলে কি তাই আমারে করলে আহত,
ছিড়ে দিলে দোহের মাঝে ছিল যা মায়ার জাল
আমার বুকের রক্তে তোমার মসনদ হল লাল।
আজ বসন্তের সমীরণে-
চাই যে তোমার ক্ষমতার অবসান
তোমার বেদীজুড়ে করলে জারি, নিষেধাজ্ঞার বাণ!
নিষেধাজ্ঞা মানব না আর, মানবনা’ক শোষণ
চলবেনা আর ভিন্নমতের পরে দলন, অপশাসন।
তোমার চোখে চেয়ে বলব এসব, সাহস আমার কই
তাই পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে লুকিয়ে বেড়াই সই!
নাই জনমত, জনবল আমার, নাই সমর্থনের বাড়াবাড়ি
বহিস্কৃত আমার পরে কিসের এত কড়াকড়ি
কিসের তোমার শঙ্কা?
আমি অক্ষম পুনুরুদ্ধারে তোমার বেদীলঙ্কা!
তবু আর রবনা তোমায় ছেড়ে স্বেচ্ছা নির্বাসনে
আমার দাবি মানতে হবে আজকে রণাঙ্গনে,
তোমার তরে আত্মাহুতি, আমরণ অনশন
চাই সুদৃষ্টি তোমার, মহারাণীর কৃপা পণ।
আজকে লড়াই রাজ্যহারার, রাজ্যপালের সনে
বইবে ধারা রক্তারক্তির মনের বৃন্দাবনে,
তুমিই জানি জিতবে প্রিয় অবশেষে
বীরের বাহু থমকে যাবে তোমার কাছে এসে।
তোমায় হারিয়ে বিজয়ী হব, সে বীর যে আমি নই
আমি কেবল বিদ্রোহী এক, ভিন্নমতের সই।
তোমার মতে আমার মতে হয়না বলেই মিল
আমি ছুতে পারিনা’ক তোমার শীতল দিল,
বিদ্রোহের শাস্তি নিয়ে একলা ধুকে ধুকে
ফাগুনে আজ মরব প্রিয়া তোমার সমুখে।
সে মৃত্যু তোমার রাজ্যভার কাপাবে না এতটুকু
শোষিত জনতা আমায় নিয়ে হবেনা উৎসুক!
আমার জন্যে হবে না স্মরণসভা,
তোমার স্বৈরতন্ত্রের অবসানের দাবিতে –
হবেনা কোন বিশৃঙ্খলা, হইচই।
কারণ, আমি ছিলাম তোমার ভিন্নমতের সই!

ঢাকা, ১২.০২.২০১২

Leave a Reply